বাংলালিংক 4G #FeelsLikeNew ধারণাকে আরও দৃঢ় করার জন্য সম্প্রতি সদা আগ্রহী ঢাকা শহরবাসীর জন্য নিয়ে এসেছিল একটি সম্পূর্ণ নতুন অভিজ্ঞতা। ক্লান্তিকর নাগরিক জীবনে, ঢাকা শহরবাসী কিছুটা নতুনত্ব এবং সতেজতা পেতে চেষ্টা করে, কিন্তু সবসময় তা পাওয়া হয়ে ওঠে না। চলচ্চিত্রপ্রেমীদের চলচ্চিত্র দেখার অভিজ্ঞতাকে নতুন মাত্রা দেওয়ার দৃঢ় প্রয়াস থেকে, দর্শককে একদম #FeelsLikeNew অভিজ্ঞতা দেওয়ার জন্য, বাংলালিংক 4G ১৬ মার্চ, ২০১৮ তারিখে আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটি বসুন্ধরার আউটডোর এক্সপো জোনে আয়োজন করেছিল দেশের প্রথম “ড্রাইভ ইন মুভি”।

নাম শুনে নিশ্চয়ই বোঝা যাচ্ছে এই ইভেন্টটি করার উদ্দেশ্য কী। ঘরের বাইরে বড় কোনো স্থানে বড় স্ক্রিনে চলচ্চিত্র দেখা এবং উপভোগ করা, যেখানে মানুষ তাদের গাড়ি নিয়ে আসতে পারবে, গাড়ির ভেতরে বসে বা বাইরে থেকে খোলা আকাশের নিচে চলচ্চিত্র দেখবে এবং চলচ্চিত্র দেখার এক নতুন অভিজ্ঞতা অর্জন করবে; এই চিন্তা থেকেই এই ইভেন্টটি করা হয়েছে। যদিও অনেকের আগে থেকেই চলচ্চিত্রগুলো দেখা ছিল, তবুও মারভেল-এর সুপারহিরো নিয়ে “স্পাইডারম্যানঃ হোমকামিং” এবং “স্টিফেন কিং-এর উপন্যাস থেকে নির্মিত হরর ব্লকবাস্টার “ইট (২০০৭)” দেখার অভিজ্ঞতাটা সবার জন্যই একদম নতুন এবং সেজন্যই ইভেন্টটি সবার মধ্যে তুমুল সাড়া ফেলেছে। ২০০টি গাড়ি ইভেন্টে অংশ নিয়েছে, অন্তত ১০০ জন ওয়াক-ইন অডিয়েন্স ছিল। এতো সাড়া পড়বে সেটি ইভেন্টের উদ্যোক্তারাও আশা করেননি। এই ইভেন্টটি সফল হওয়ার মূল কারণ ছিল চলচ্চিত্র দেখার এই ধরণের নতুন অভিজ্ঞতা নিয়ে মানুষের আগ্রহ, কারণ এই ধরণের ইভেন্ট বাংলাদেশে এর আগে কখনো হয়নি।

উদ্যোক্তাদের অক্লান্ত প্রচেষ্টার পর, শুক্রবার সন্ধ্যাটি নিয়ে সবার উৎসাহ ছিল তুঙ্গে। এই শহরেরও দরকার ছিল এমন একটি নতুন অভিজ্ঞতা।

উপরন্তু, পুরো ইভেন্ট জুড়েই প্রাকাশ পাচ্ছিল দর্শকদের সন্তুষ্টি। এমনকি ইভেন্টে আসা শিশুরাও সিনেমা দেখার পুরো ৪ ঘন্টা সময়জুড়ে আরামদায়ক বিন ব্যাগ থেকে একবারও ওঠেনি! সিনেমা দেখার সবসময়ের সঙ্গী পপকর্ন তো ছিলই, সাথে সাথে দেশের অন্যান্য খাবারের দোকানগুলোও অংশ নিয়েছিল এই ইভেন্টে।

সবশেষে তাই বলাই যায়, এই অভিজ্ঞতা একদম নতুন সবার জন্য।

 

বাংলাদেশ এমন দেখেনি আগে

যা দেখি নতুন লাগে