বাংলালিংক নেক্সট টিউবার-এর দ্বিতীয় আসরের গ্র্যান্ড ফিনালেতে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা

ঢাকা, ২২ ডিসেম্বর ২০১৮: দেশের প্রথম ডিজিটাল রিয়ালিটি শো বাংলালিংক নেক্সট টিউবার-এর দ্বিতীয় আসরের গ্র্যান্ড ফিনালেতে প্রতিযোগিতাটির বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। বিজয়ীদের নাম ঘোষণার মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন প্রান্তের প্রতিভাবান ভিডিও কনটেন্ট নির্মাতাদের অংশগ্রহণে আয়োজিত দুই মাসব্যাপী প্রতিযোগিতাটির সমাপ্তি ঘটে। জনপ্রিয় অভিনেত্রী সুবর্ণা মুস্তাফা গ্র্যান্ড ফিনালেতে প্রধান অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করেন। এছাড়াও বিশেষ এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলালিংক-এর চিফ কর্পোরেট এ্যান্ড রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স অফিসার তাইমুর রহমান, বাংলালিংক-এর চিফ কমপ্লায়েন্স অফিসার মো. নুরুল আলম, এবিসি রেডিও এফএম ৮৯.২-এর হেড অফ অপারেশন এহসানুল হক টিটো, এনটিভি-এর হেড অফ প্রোগ্রাম মুস্তাফা কামাল সৈয়দ, বঙ্গ-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর আহাদ মোহাম্মদ এবং প্রতিষ্ঠানগুলির অন্যান্য উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তারা।

প্রতিযোগিতাটির প্রতিটি পর্যায়ে ভিডিও কনটেন্ট নির্মাণের অসাধারণ নৈপুণ্য প্রদর্শন করে প্রথম স্থান অর্জন করেন নাজিব নিনাদ ও প্রিয়ম। পুরস্কার হিসেবে তারা পাচ্ছেন ৩ লক্ষ টাকা মূল্যের বাংলালিংক-এর চুক্তিসহ গুগলের সিঙ্গাপুর হেড কোয়ার্টার পরিদর্শনের বিশেষ সুযোগ। প্রথম ও দ্বিতীয় রানার-আপ মারিশা রহমান ও জারিফ কবির পাচ্ছেন বাংলালিংক-এর সাথে যথাক্রমে ২ ও ১ লক্ষ টাকা মূল্যের চুক্তির সুযোগ। এছাড়া বিজয়ীরা ভিডিও কনটেন্ট নির্মাণের ক্ষেত্রে বাংলালিংক ও বঙ্গ-এর পক্ষ থেকে পাবেন বিশেষ সহযোগিতা। গ্র্যান্ড ফিনালেটি আগামী ২৮ ডিসেম্বর রাত ৯.০৫টায় সম্প্রচারিত হবে এনটিভি-এর পর্দায়।
প্রখ্যাত অভিনেতা ইরেশ জাকের, জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা ও ইউটিউব সেলিব্রেটি তামিম মৃধা ও শৌভিক আহমেদ এবারের আসরের বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন। অনুষ্ঠানটির টিভি ও রেডিও পার্টনার হিসেবে সহযোগিতা প্রদান করেছে এনটিভি ও এবিসি রেডিও এফএম ৮৯.২। এছাড়া বাংলালিংক নেক্সট টিউবার-এর অ্যাসোসিয়েট পার্টনারের ভূমিকা পালন করেছে বঙ্গ।

বাংলালিংক-এর চিফ কর্পোরেট এ্যান্ড রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স অফিসার তাইমুর রহমান বলেন, “প্রতিযোগিতার প্রথম তিনটি স্থান অর্জনের জন্য আমি বিজয়ীদের আন্তরিক অভিনন্দন জানাচ্ছি। একটি অভিনব ডিজিটাল উদ্যোগের মাধ্যমে নতুন প্রজন্মের ক্ষমতায়নের লক্ষ্য নিয়ে আমরা নেক্সট টিউবার শুরু করেছিলাম। প্রতিভাবান এই তরুণরা প্রতিযোগিতায় অসাধারণ নৈপুণ্য প্রদর্শন করে আমাদের সেই লক্ষ্য পূরণে ভূমিকা রেখেছে। আমরা আশা করি, এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে তারা যে অভিজ্ঞতা অর্জন করেছে তা তাদের ভবিষ্যতের তারকা হওয়ার স্বপ্ন পূরণে সাহায্য করবে।”
দেশের ভিডিও কন্টেন্ট নির্মাতাদের জন্য একটি অভিনব ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম হিসেবে চালু হওয়া এই রিয়েলিটি শো-এর প্রথম আসর দেশব্যাপী তরুণদের মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করতে সক্ষম হয়। গত সেপ্টেম্বরে আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলালিংক নেক্সট টিউবার-এর দ্বিতীয় আসর শুরু হওয়ার পর হাজারো উৎসাহী ভিডিও কনটেন্ট নির্মাতা ভিডিও সাবমিট করার মাধ্যমে এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে।