সিম প্রতিস্থাপনের জন্য সাবস্ক্রিপশন করা যাবে যদি কিনা সিমটি হারিয়ে যায়/চুরি হয়ে যায়/ অক্ষম হয়ে যায়/নষ্ট হয়ে যায়। গ্রাহককে সিম প্রতিস্থাপনের ক্ষেত্রে তার মূল সাবস্ক্রিপশন চুক্তি ফর্ম (SAF) আনতে হবে। SAF যদি না থাকে বা যাচাই করা না যায়, টাচ পয়েন্ট এ কাস্টমার কেয়ার প্রতিনিধি সাবস্ক্রিপশন ব্যবহারের সত্যতা কিছু প্রশ্নের ভিত্তিতে যাচাই করবেন।

  • মূল SAF-এর কপি। মূল SAF হারিয়ে গিয়ে থাকলে কাস্টমার কেয়ার প্রতিনিধি কানেকশনের বৈধতা যাচাই করার জন্য কাস্টমারের সম্পর্কে কিছু তথ্য জিজ্ঞেস করতে পারেন (যেমন কাস্টমারের ব্যক্তিগত তথ্য, বর্তমান ব্যালেন্স, শেষ রিচার্জ, NID, FNF, ইত্যাদি)।
  • সিম পরিবর্তনের জন্য প্রয়োজন বায়মেট্রিক নিবন্ধন ও জাতীয় পরিচয়পত্র। যদি জাতীয় পরিচয়পত্র না থাকে তাহলে সিম পরিবর্তনের জন্য বাংলালিংক কাস্টমার কেয়ারে নিয়ে আসো:
  • পাসপোর্ট
  • ড্রাইভিং লাইসেন্স বা
  • জন্ম নিবন্ধন

হেল্পলাইন থেকে সিম বদলানোর ক্ষেত্রে ন্যাশনাল আইডি যাচাই করার পরামর্শ দেয়া হবে। কাস্টমার যদি বলেন যে তার NID নেই বা হারিয়ে গিয়েছে, সে ক্ষেত্রে কাস্টমারকে উপরের তালিকা থেকে যে কোন বিকল্প ফোটো আইডি ও তার ফটোকপি নিয়ে টাচ পয়েন্টে (কেয়ার সেন্টার, বিপি অথবা বিএসপি) যেতে বলা হবে। ফোটো আইডি’র বৈধতা যাচাই করার পর সার্ভিস পুনরায় চালু করা হবে।

  • বিকল্প আই ডি ব্যাবহার করে সিম বদলানোর ক্ষেত্রে কাস্টমারকে লিখিত ভাবে জানাতে হবে যে সেই মুহূর্তে তার NID ছিল না এবং তার পরিবর্তে বিকল্প আই ডি ব্যাবহার করা হয়েছে।
  • সম্পূর্ণ ফর্ম
  • কর্পোরেট (এবং SME) কাস্টমারদের কোম্পানি লেটারহেড-এ লিখিত ভাবে প্রমাণ করতে হবে যে তিনি-ই সেই কানেকশনের মালিক।