সবচেয়ে বেশি দেয়ার নেটওয়ার্কে এবার আপনিও চলে আসুন!

মোবাইল নাম্বার পোর্টাবিলিটির (এমএনপি) মাধ্যমে এখন আপনার আগের নাম্বার একই রেখে বাংলালিংক-এর নেটওয়ার্কে চলে আসতে পারবেন। এর মাধ্যমে আপনি আপনার ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বারটি না বদলেই অন্য অপারেটরে চলে আসতে পারেন।

এর জন্য আপনাকে খুবই সহজ তিনটি ধাপ অনুসরণ করতে হবে।:-

  • আপনার মোবাইল নাম্বারের সাথে NID কপি নিয়ে আপনার নিকটস্থ বাংলালিংক সেলস্‌ অ্যান্ড সার্ভিস সেন্টারে চলে আসুন
  • ভেরিফিকেশনের জন্য আপনার আঙুলের ছাপ বায়োমেট্রিক ডিভাইসে প্রদান করুন এবং সার্ভিস প্রোভাইডার/রিটেইলারকে ই-রেজিস্ট্রেশন ফর্ম পূরণ করতে সাহায্য করুন
  • নতুন বাংলালিংক সিমটি সংগ্রহ করুন

সবচেয়ে বেশি দেয়ার নেটওয়ার্কে কেন আসবেন?

বর্তমানে সকল মোবাইল অপারেটরের মাঝে সবচেয়ে বেশি স্পেকট্রাম নিয়ে সবার চেয়ে ভালো গ্রাহকসেবা দিতে বাংলালিংক সবসময় প্রস্তুত। আর বাংলালিংক নেটওয়ার্কে বেশি দেওয়ার উৎসব চলে সবসময়। এই উৎসবে মেতে উঠতে এমএনপি’র মাধ্যমে আপনিও চলে আসুন আমাদের সাথে!

রিচার্জ করুন আর উপভোগ করুন-

  • ১GB ফ্রি ইন্টারনেট
  • দেশের সেরা কলরেট - যেকোনো নাম্বারে ৫৪ পায়সা/মিনিট আর এক সেকেন্ড এর পালস (মেয়াদ ৩ মাস)

১GB @ ৩৩ টাকা প্যাক –

  • ১GB @ ৩৩ টাকা প্যাক কিনুন যত খুশি ততবার সিম এক্টিভেট করার প্রথম ৯০ দিনের মধ্যে
  • কিনতে রিচার্জ করুন ৩৩ টাকা অথবা ডায়াল করুন *১৩২*০৩৩#

অফারের বিস্তারিতঃ

  • রিচার্জে কলরেটের মেয়াদ ৩ মাস (৯০ দিন) এবং ১GB ইন্টারনেটের মেয়াদ ১৫ দিন
  • ১GB ফ্রি ইন্টারনেটের ব্যালেন্স চেক করতে ডায়াল *১২৪*৫#
  • ৩৩ টাকায় ১GB ইন্টারনেটের মেয়াদ ৭ দিন
  • ৩৩ টাকায় ১GB ইন্টারনেটের ব্যালেন্স চেক করতে ডায়াল *১২৪*৩০০#
  • SIM চালু করার প্রথম ৯০ দিনের মাঝে আপনি যতবার খুশি ততবার ৩৩ টাকায় ১GB ইন্টারনেটের প্যাকটি নিতে পারবেন
  • এই অফারগুলো সীমিত সময়ের জন্য

অ্যাক্টিভেশন বোনাস:

  • নতুন সংযোগে শুরুতেই ৳৫ দেয়া থাকবে যার মেয়াদ ১৫ দিন। এটি যেকোনো বাংলালিংক সার্ভিসের জন্য ব্যবহার যাবে। মূল একাউন্টের ব্যালেন্স জানতে ডায়াল *১২৪#
  • ৩ দিনের মেয়াদে ৫০MB ইন্টারনেট দেয়া থাকবে। ইন্টারনেট ব্যালেন্স চেক করতে ডায়াল *১২৪*৫#
  • ৫০টি বাংলালিংক টু বাংলালিংক এসএমএস থাকবে ১০ দিনের মেয়াদে। এসএমএস ব্যালেন্স চেক করতে ডায়াল *১২৪*৪#
  • ২২ পয়সা/১০ সেকেন্ড যেকোনো নাম্বারে দিন-রাত ২৪ ঘন্টা

এমএনপি বিষয়ে সাধারণ প্রশ্ন ও উত্তরঃ

০১. এমএনপি কি?

  • এমএনপি হলো মোবাইল নাম্বার পোর্টাবিলিটি। এর মাধ্যমে আপনি আপনার ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বারটি না বদলেই অন্য অপারেটরে চলে আসতে পারেন। এর জন্য আপনাকে আপনার বন্ধু-পরিবার অথবা অন্য কোথাও নতুন করে জানাতে হবে না।

০২. এমএনপি’র জন্য কি কি কাগজপত্র আনতে হবে?

  • মোবাইল নাম্বার (জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে নিবন্ধিত)
  • জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি

০৩. এমএনপি প্রক্রিয়া চালু করার আগে কি করতে হবে?

  • যদি অন্য টেলিকম অপারেটরের এমএফএস অ্যাকাউন্ট থাকে তা বন্ধ করতে হবে। তবে আপনার বিকাশ, ডিবিবিএল, ইউসিবিএল এবং অন্য নন-টেলকো এমএফএস অ্যাকাউন্ট থাকলে সে ক্ষেত্রে কোনো অসুবিধা হবে না
  • যদি অন্য অপারেটরে বকেয়া বা লোন থাকে তা পরিশোধ করতে হবে

০৪. সর্বোচ্চ কতবার আমি এমএনপি চালু করতে পারবো? এর জন্য নির্ধারিত কোনো সময় বা শর্ত আছে কি?

  • আপনি যতবার খুশি ততবার এমএনপি’র মাধ্যমে আপনার নাম্বার পরিবর্তন করতে পারবেন। তবে এমএনপি প্রক্রিয়া চালু করার পর অবশ্যই ৯০ দিন আপনাকে এই সেবা নিতে হবে।

০৫. সফলভাবে নতুন মোবাইল সার্ভিস অপারেটরে চলে আসার পর আমার কি সিম কার্ড পরিবর্তন করতে হবে?

  • হ্যাঁ। প্রতিটি মোবাইল অপারেটরের আলাদা আলাদা বৈশিষ্ট আছে বলে আপনার এমএনপি প্রক্রিয়া সফলভাবে সম্পন্ন হলে আপনাকে একটি নতুন বাংলালিংক সিম কার্ড দেয়া হবে

০৬. এমএনপি সার্ভিসটি চালু হতে কতক্ষণ সময়ের প্রয়োজন?

  • এই সার্ভিসটি প্রায় সাথে সাথেই চালু হয়ে যায়। তবে সর্বোচ্চ ৭২ ঘন্টা পর্যন্ত সময় লাগতে পারে

০৭. এমএনপি’র মাধ্যমে মোবাইল অপারেটর পরিবর্তনের সময় কোনো অসুবিধা হবে কি?

  • এমএনপি’র প্রক্রিয়া খুব তাড়াতাড়ি সম্পন্ন হয়ে যায়। তবে এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবার সময় অপারেটর সার্ভিসে ২ থেকে ৪ ঘন্টা একটু সমস্যা হতে পারে

০৮. আমার বিল সাইকেল কি পরিবর্তন হবে?

  • পোস্টপেইড সংযোগের জন্য আপনার বিল সাইকেল আপনার নতুন সার্ভিস প্রদানকারী অপারেটরের সাথে পরিবর্তিত হতে পারে। আপনি চাইলে পরে আপনার প্রয়োজনের উপর ভিত্তি করে বিল সাইকেল পরিবর্তন করতে পারেন

০৯. আমার এয়ার টাইম, অব্যবহৃত ডাটা/মিনিট/এসএমএস ইত্যাদি কি এমএনপি’তে অন্য অপারেটরে ট্রান্সফার করা যাবে?

  • না। অব্যবহৃত এয়ার টাইম, অব্যবহৃত ডাটা/মিনিট/এসএমএস এমএনপি’তে অন্য অপারেটরে ট্রান্সফার করা সম্ভব নয়

১০. এমএনপি’তে পরিবর্তিত হলে আমি কি আমার আগের নাম্বারের ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস, রোমিং সুবিধাসমূহ উপভোগ করতে পারবো?

  • হ্যাঁ। কিন্তু আপনার বর্তমান অপারেটরের ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস এবং এমএনপিকৃত অপারেটরের ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস আলাদা হতে পারে। সফলভাবে এমএনপি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে আপনাকে আপনার নতুন অপারেটরের ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিসে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে

১১. সফলভাবে এমএনপি চালু করার পর আমার সব কন্টাকটস আর অ্যাড্রেসবুক কী ঠিক থাকবে?

  • যদি আপনার মোবাইল ফোনে সব নাম্বার সংরক্ষণ করা থাকে তাহলে সেগুলো ঠিক থাকবে। যদি নাম্বারগুলো সিমকার্ডে সংরক্ষিত থাকে তাহলে সেগুলো থাকবে না। যেহেতু নতুন সেবাদানকারী অপারেটর কর্তৃক আপনাকে নতুন সিম কার্ড সংগ্রহ করতে হবে। এই কারনে আপনার সিম কার্ডে সংরক্ষিত সব নাম্বার মোবাইল ফোনে সংরক্ষণ করতে হবে

১২. এমএনপি প্রক্রিয়ায় আমি কি আমার প্রি-পেইড নাম্বার পোস্ট-পেইড নাম্বারে পরিবর্তন করতে পারবো? অথবা পোস্ট-পেইড থেকে প্রি-পেইডে?

  • না। আপনি প্রি-পেইড থেকে প্রি-পেইডে এবং পোস্ট-পেইড থেকে পোস্ট-পেইডে যেতে পারবেন। তবে বাংলালিংক-এর নেটওয়ার্কে আসার পরে আপনি প্রি-পেইড থেকে পোস্ট-পেইডে অথবা পোস্ট-পেইড থেকে প্রি-পেইডে আপনার নাম্বার ট্রান্সফার করতে পারবেন

১৩. ডোনার (সেবাদানকারী) অপারেটর কে?

  • ডোনার অপারেটর হচ্ছে সেই সেবাপ্রদানকারী প্রতিষ্ঠান যেখান থেকে আপনি আপনার নাম্বার এমএনপি’র জন্য রিকোয়েস্ট করবেন

১৪. রিসিপিয়েন্ট (সেবাগ্রহণকারী) অপারেটর কে?

  • রিসিপিয়েন্ট (সেবাগ্রহণকারী) অপারেটর হলো সেই সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান যার নেটওয়ার্ক এবং অন্যান্য সেবাসমূহে কাস্টমাররা পেতে পারবেন

১৫.ব্যালান্স চেক করতে, ডাটা কিনতে বা কাস্টমের সার্ভিস ব্যবহার করবেন কিভাবে?

  • ব্যালেন্স চেক করতে ডায়াল *১২৪#
  • ইন্টারনেট প্যাক এর জন্য ডায়াল *৫০০০#
  • টকটাইম এবং টক+ইন্টারনেট বান্ডেল প্যাক সম্পর্কে জানতে ডায়াল *১১০০#
  • ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স সার্ভিস-এর জন্য ডায়াল *১২১*৯৯#
  • আমার অফার-এর জন্য ডায়াল *৮৮৮#
  • বাংলালিংক প্রিয়জন-এর জন্য ডায়াল *৬০০০#
  • কাস্টমার সেলফ কেয়ার-এর জন্য ডায়াল *১২১#